গরুর মাংস পরিবহনের জেরে গরুর গোবর খাইয়ে শারীরিক নির্যাতন করেছিল ভারতের হিন্দু উগ্রপন্থীরা। সম্প্রতি ঘটে যাওয়া সে ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতে আবারও একই ঘটনা ঘটেছে দেশটিতে। এবার কট্টরপন্থী হিন্দুরা গরুর মাংস বহনের কারণে ৪ যুবককে প্রকাশ্যে রাস্তায় পিটিয়েছে।

ভারতীয় গণমাধ্যম ইন্ডিয়া টুডের খবরে বলা হয়, ভারতের গুজরাট রাজ্যের গির সোমনাথ এলাকায় শিব সেনা দলের সদস্যরা গরুর মাংস বহনের অভিযোগে চার যুবককে রাস্তার মধ্যে বেল্ট ও লাঠি দিয়ে পেটায়। এদের মধ্যে আহত দুইজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শিব সেনাদের গির সোমনাথ জেলার প্রেসিডেন্ট গৌস্বামী প্রমোদ রমেশ গির প্রথম যুবকটিকে পেটায়। পরে তিনি নিজেই ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করেন।

আহত ওই যুবকরা জানায়, তারা স্থানীয় একটি মৃত পশু থেকে উপাদান প্রস্তুতকারক কারখানাকর্মী। কাজ করার সময় তারা একটি মৃত গরু দেখতে পায়। তারা তাদের কাজের অংশ হিসেবেই গরুর মাংস ও চামড়া নিয়ে যাচ্ছিল।

রমেশ গিরি বলেন, আমাদের কাছে অভিযোগ আসে, অবৈধ গরু ও গরুর মাংস বহন করে নিয়ে যাচ্ছিল ওই ৪ যুবক। ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রমাণ পাওয়া যায় ওই যুবকেরা গরু হত্যায় জড়িত। তারা জানিয়েছিল তাদের কাছে সরকারি অনুমতি রয়েছে এই কাজের জন্য।

তিনি বলেন, ‘আমাদের তথ্য অনুযায়ী, এটা সম্ভব নয়। তারপর আমরা ওই যুবকদের পুলিশের কাছে সোপর্দ করি।’

খবরে বলা হয়, পুলিশ ঘটনাটি তদন্ত করে দেখছে।

সূত্র: দ্য রিপোর্ট

Advertisements