raw_india_11014বিশ্বের প্রভাবশালী গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর অন্যতম ভারতের রিসার্চ অ্যান্ড অ্যানালাইসিস উইং-‘র’। বিশেষ করে এর আঞ্চলিক প্রভাব ব্যাপক।

আজ জেনে নিন প্রভাবশালী এ গোয়েন্দা সংস্থা ‘র’ কিছু তথ্য-

১. ‘র’ এর মূলমন্ত্র হল ‘ধর্ম রক্ষতি রক্ষিত’ অর্থাৎ যে ধর্ম রক্ষা করে সে সব সময় সুরক্ষিত থাকে।

২. ১৯৬২ সালের ইন্দো-চীন যুদ্ধ এবং ১৯৬৫ সালের ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধের পর ১৯৬৮ সালের ২১ সেপ্টেম্বর ‘র’ এর জন্ম।

৩. ভারতকে সুরক্ষিত রাখতেই প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী ও তার সরকার এই গোয়েন্দা সংস্থা গড়ে তোলার সিদ্ধান্ত নেন।

৪. ‘র’ এর প্রথম ডিরেক্টর রামেশ্বর নাথ কাও।

৫. আমেরিকার গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ’র আদলে একে গড়ে তোলা হয়েছে।

৬. ‘র’ এর কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণের জন্য পাঠানো হয় আমেরিকা, ব্রিটেন এবং ইসরাইলে।

৭. কঠিন প্রশিক্ষণের মাধ্যমে তৈরি করা হয় এক একজন কর্মকর্তাকে। কঠিন পরিস্থিতিতে কীভাবে নিজেদের রক্ষা করবে তা শেখানো হয়। বিশেষ করে ‘ক্রব মাগা’ এবং গুপ্তচরবৃত্তির জন্য টেকনিক্যাল ডিভাইস কীভাবে ব্যবহার করতে হবে তা শেখানো হয়।

৮. ফিন্যান্সিয়াল, ইকনমিক অ্যানালিসিস, স্পেস টেকনোলজি, ইনফর্মেশন সিকিউরিটি, এনার্জি সিকিউরিটি এবং সায়েন্টিফিক নলেজের ওপর প্রশিক্ষণ দেয়া হয় কর্মকর্তাদের।

৯. ১৯৮৪ সালে ভারতীয় সেনাকে সতর্ক করে ‘র’ জানায় যে, পাকিস্তান সিয়াচেন দখল করার জন্য অপারেশন আবাবিল’র প্রস্তুতি নিচ্ছে। ‘র’ এর গোপন তথ্যের ওপর ভিত্তি করেই পাক সেনাদের পরিকল্পনা ভেস্তে দেয় ভারতীয় সেনা।

১০. প্রথম দিকে আইবি, ইন্ডিয়ান পুলিশ সার্ভিসেস, ইন্ডিয়ান মিলিটারি এবং রেভিনিউ ডিপার্টমেন্ট থেকে কর্মকর্তাদেরকে নিয়োগ করা হতো ‘র’ এ। তবে এখন বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ছাত্রদের এখানে নিয়োগ করা হচ্ছে।

১১. কোনো বিষয়েই সংসদকে জবাবদিহি করতে বাধ্য নয় ‘র’। শুধু প্রধানমন্ত্রী এবং জয়েন্ট ইন্টেলিজেন্স কমিটিকেই জবাবদিহি করবে। ‘র’ এর প্রধানকে সেক্রেটারি বলা হয়।

১২. মাত্র দুই বছরের ট্রেনিং হয় ‘র’ এর। তার মধ্যে রয়েছে বেসিক ট্রেনিং এবং অ্যাডভান্সড ট্রেনিং। বেসিক ট্রেনিং ১০ দিন মতো চলে। এই সময় ট্রেনিদের ইন্টেলিজেন্স এবং গুপ্তচর জগতের সঙ্গে পরিচয় ঘটানো হয়।

১৩. বাংলাদেশের মুক্তিবাহিনীকে সাহায্যের ক্ষেত্রে বিশেষ ভূমিকা নিয়েছিল ‘র’।

১৪. অপারেশন কাহুটা-তে ব্যাপক ভূমিকা ছিল ‘র’ এর। এই অপারেশনের মাধ্যমে পাকিস্তানের দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্রর প্রোগ্রাম সম্পর্কে গোপনে তথ্য সংগ্রহ করেছিল ‘র’ কর্মকর্তারা।

১৫. পাকিস্তান ও চীন সম্পর্কিত বিশেষজ্ঞ হন ‘র’ এর প্রধানরা। এই উইংয়ের বর্তমান প্রধান রাজেন্দ্র খন্না।

সূত্র: আনন্দবাজার, Jugantor

Advertisements